রাফায় ইসরায়েলি বিমান হামলায় ১৪ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন, যাদের বেশিরভাগই শিশু

Alokbali

রাফায় ইসরায়েলি হামলায় অন্তত ছয় শিশু নিহত হয়েছে, ধ্বংসস্তূপের নিচে আরও অনেকে আটকা পড়েছে বলে প্রত্যক্ষদর্শী ও গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে।

একজন প্রত্যক্ষদর্শী ও গণমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ইসরায়েলি বাহিনী দক্ষিণ গাজার রাফাহ শহরের একটি আবাসিক ভবনে বোমা হামলা চালিয়ে কমপক্ষে ১৪ ফিলিস্তিনিকে হত্যা করেছে এবং ধ্বংসস্তূপের নিচে আরও অনেককে চাপা দিয়েছে।

শনিবার সন্ধ্যায় রাফায় বাস্তুচ্যুত ফিলিস্তিনিদের আবাসস্থল তাঁবুতে ইসরায়েলি ড্রোন হামলায় কমপক্ষে ১১ জন নিহত হওয়ার কয়েক ঘণ্টা পর শনিবার সন্ধ্যায় এই হামলা চালানো হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, রাফায় সর্বশেষ হামলায় আল সালাম এলাকার একটি চারতলা ভবন ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে।

এতে অন্তত ছয় শিশু নিহত ও কয়েক ডজন আহত হয়েছে বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা ওয়াফা।

আহমেদ রাদওয়ান নামে এক উদ্ধারকর্মী জানিয়েছেন, গাজায় ইসরায়েলের চলমান হামলায় বাস্তুচ্যুত লোকজনও ভবনটিতে বেসামরিক লোকজন ছিল।

“আমরা বেশ কয়েকটি মৃতদেহ সরিয়ে ফেলতে সক্ষম হয়েছি এবং বেশ কয়েকজন আহত লোককে উদ্ধার করেছি তবে আরও অনেক বেসামরিক নাগরিক – মহিলা ও শিশু এখনও ধ্বংসস্তূপের নীচে রয়েছে,”

তিনি বলেন, আমাদের সম্পদ সীমিত ও অপ্রতুল। এই যুদ্ধ তার ষষ্ঠ মাসে প্রবেশ করার সাথে সাথে অনুসন্ধান ও উদ্ধার সরঞ্জাম চালানোর জন্য কোনও জ্বালানী নেই। ধ্বংসস্তূপের নিচ থেকে নারী ও শিশুদের উদ্ধার করতে আমাদের ভারী যন্ত্রপাতি দরকার, কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে তা করার সক্ষমতা আমাদের নেই।

ধ্বংসস্তূপের নিচ থেকে হতাহতদের উদ্ধারে আমাদের হাত ও পুরনো কিছু যন্ত্রপাতি ব্যবহার করতে হচ্ছে।

ওয়াফা দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর খান ইউনুসে বিমান হামলার পাশাপাশি গাজা উপত্যকার উত্তর ও মধ্যাঞ্চলের জাবালিয়া ও নুসেইরাত শরণার্থী শিবিরে হামলার কথাও জানিয়েছে।

জাবালিয়া ও নুসেইরাতে বেশ কয়েকজন নিহত ও আহত হয়েছে বলে জানিয়েছে তারা, তবে নিহতের সঠিক সংখ্যা জানায়নি তারা।

ইসরায়েলি বাহিনী তুলকারেম শহর, কালকিলিয়া শহরের নিকটবর্তী আজজুন ও জায়ুস শহর এবং হেবরন শহরের উত্তরে আল-আরুব শরণার্থী শিবিরসহ অধিকৃত পশ্চিম তীরে অভিযান চালানোর পর গাজায় অব্যাহত হামলা চালানো হয়।

ওয়াফা জানিয়েছে, দু’জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে এবং তাদের মধ্যে একজনকে কিছুক্ষণের জন্য আটক করা হয়েছে।

গত ৭ অক্টোবর থেকে গাজায় ইসরাইল যুদ্ধ শুরু করার পর থেকে এ পর্যন্ত অন্তত ৩০ হাজার ৩২০ ফিলিস্তিনি নিহত ও ৭১ হাজার ৫৩৩ জন আহত হয়েছে। গাজায় ইসরায়েলের ধ্বংসাত্মক আক্রমণ ও অবরোধের ফলে উপকূলীয় ছিটমহলের বেশিরভাগ অংশ ধ্বংসের মুখে পড়েছে এবং প্রায় ২৩ লাখ মানুষ দুর্ভিক্ষের দ্বারপ্রান্তে চলে গেছে।

ত্রাণ বহরের কাছে পৌঁছানোর চেষ্টাকালে ক্ষুধার্ত ফিলিস্তিনিদের ওপর বৃহস্পতিবার ইসরায়েলি বাহিনী গুলি চালালে অন্তত ১১৮ জন নিহত হয়।

এই হামলা বিশ্বব্যাপী ক্ষোভের জন্ম দেয় এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র গাজায় খাদ্য সহায়তার বিমান নিক্ষেপ করে। অভিযানে জর্ডানের সেনাবাহিনীও অংশ নেয়।

সংঘাত অবসানের জন্য বিশ্বব্যাপী প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে, এদিকে, একজন সিনিয়র মার্কিন কর্মকর্তা বলেছেন যে লড়াইয়ে ছয় সপ্তাহের বিরতির একটি কাঠামো রয়েছে।

ওই কর্মকর্তা সাংবাদিকদের বলেন, ‘ইসরায়েলিরা কমবেশি এটি মেনে নিয়েছে’ এবং ‘এখন গাজা নিয়ন্ত্রণকারী সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাস’-এর ওপর দায়িত্ব বর্তায়।

মিশরের দুটি নিরাপত্তা সূত্রের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, ইসরায়েল ও হামাসের প্রতিনিধিরা আলোচনার জন্য রোববার কায়রোতে পৌঁছানোর কথা রয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ

Calendar

May 2024
S M T W T F S
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031  

Related

আলোকবালী
আলোকবালী.কম একটি অনলাইন সংবাদপত্র যা শিক্ষা, চাকরি, প্রযুক্তি এবং আরও অনেক কিছু কভার করে। আলোকবালী.কম এমন একটি ওয়েবসাইট যা আপনি সর্বশেষ সংবাদ পেতে, নতুন জিনিস শিখতে, দরকারী টিপস সন্ধান করতে বা কিছু মজা করতে পরিদর্শন করতে পারেন। আলোকবালী.কম এমন একটি ওয়েবসাইট যা আপনি বিশ্বাস করতে এবং উপভোগ করতে পারেন।
অনুসরণ করুন

আমরা আপনার ডেটার সুরক্ষা সম্পর্কে যত্নশীল। আমাদের গোপনীয়তা নীতি পড়ুন।

কপিরাইট © ২০২৪ আলোকবালী। সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। সম্পাদক ও প্রকাশক: আওলাদ হোসেন।